প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে ১৬ অগস্ট থেকে জম্মু-কাশ্মীরের ২টি জেলায় চালু হবে 4G পরিষেবা

প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে ১৬ অগস্ট থেকে জম্মু-কাশ্মীরের ২টি জেলায় চালু হবে 4G পরিষেবা

আপাতত জম্মু ও কাশ্মীরের সব স্থানে চালু হবে না 4G ইন্টারনেট পরিষেবা । পরীক্ষামূলকভাবে জম্মু ও কাশ্মীরের দুটি জেলায় 4G পরিষেবার উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নিচ্ছে কেন্দ্র। মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টে একথাই জানিয়েছেন অ্যাটর্নি জেনারেল কে কে ভেনুগোপাল।

২০১৯ সালে অগস্ট মাসে ৩৭০ ধারা বাতিল হওয়ার পরই জম্মু-কাশ্মীরে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল ইন্টারনেট পরিষেবা। আশঙ্কা ছিল, ইন্টারনেটেক মাধ্যমে উপত্যকায় ছড়াতে পারে হিংসাত্মক পরিবেশ।

তার প্রায় ছয় মাস পরে জানুয়ারি মাসে জম্মু-কাশ্মীরে ইন্টারনেট পরিষেবা চালু করার ছাড়পত্র দিয়েছিল কেন্দ্র সরকার। তবে শুধুমাত্র কম গতির ২G পরিষেবা দেওয়ার সিদ্ধান্তই নেওয়া হয়েছিল । ২G মোবাইল ইন্টারনেট পরিষেবা চালু হলেও শুধুমাত্র নির্দিষ্ট কয়েকটি সাইটই দেখার অনুমতি পেয়েছিলেন কাশ্মীরবাসী। কিন্তুু ছিল না কোনও সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে অ্যাকসেস।

৬ মে, ২০২০ থেকে এই পরিষেবা ফের সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। কাশ্মীরে হিজবুল মুজাহিদ্দিনের প্রধান রিয়াজ নাইকু-র মৃত্যু পর অশান্তি এড়াতে উপত্যকায় বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল ইন্টারনেট পরিষেবা।

তবে ১২ মে পুলওয়ামা ও সোপিয়ান জেলা ছাড়া বাকি সব জায়গায় পুনরায় চালু করা হয়েছিল 2G মোবাইল ইন্টারনেট পরিষেবা।

অ্যাটর্নি জেনারেল জানান, স্বাধীনতা দিবসের পরদিন থেকে অর্থাৎ আগামী ১৬ অগস্ট থেকে জম্মুর একটি জেলা এবং কাশ্মীরের একটি জেলায় 4G মোবাইল ইন্টারনেট পরিষেবা চালু করা হবে । প্রাথমিকভাবে দু’মাসের জন্য এই পরিষেবা চালু থাকবে ।