৫ই সেপ্টেম্বর শিক্ষক দিবসের দিনেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার ইঙ্গিত, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

৫ই সেপ্টেম্বর শিক্ষক দিবসের দিনেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার ইঙ্গিত, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

একদিন ছাড়া একদিন ক্লাস এর মাধ্যমে ৫ ই সেপ্টেম্বর অর্থাৎ শিক্ষক দিবসের দিনেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার ইঙ্গিত দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মঙ্গলবার সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী এমনটাই জানান। এ দিন অবশ্য, ৩১ জুলাই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার মেয়াদ বাড়িয়ে ৩১ অগস্ট পর্যন্ত করার হয়েছে।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, পরিস্থিতি অনুকূল হলে দুর্গাপুজোর আগে পর্যন্ত অল্টারনেটিভ দিনে অল্টারনেটিভ ক্লাস করা যেতে পারে। তবে, সবই নির্ভর করছে করোনা পরিস্থিতির উপর।
৫ই সেপ্টেম্বর শিক্ষক দিবসের দিনেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার ইঙ্গিত, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের
মঞ্জুরি কমিশনের এই নির্দেশিকার বিরোধিতা করে সুপ্রিম কোর্টে দ্বারস্থ হয়েছে তৃণমূলের কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ওয়েবকুপা। মুখ্যমন্ত্রীও স্পষ্ট ভাবে বলেন, ছাত্র-ছাত্রীদের সুরক্ষার কথা ভেবে সেপ্টেম্বরে পরীক্ষা কোনওভাবেই নেওয়া যাবে না। পরীক্ষা যাতে না হয় সেজন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে লিখিতভাবে অভিযোগও জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, করোনা পরিস্থিতি এই মুহূর্তে ভয়ঙ্কর হয়ে উঠেছে। স্কুল-কলেজ খোলার কোনও সম্ভবনা নেই। তাই ৩১ অগস্ট পর্যন্ত বন্ধ রাখা হচ্ছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। যদি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে ৫ ই সেপ্টেম্বর সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণনের জন্মদিনের দিন স্কুল কলেজ খোলার ভাবনা চিন্তা রয়েছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী ।