কি কি পার্থক্য থাকল লকডাউন 3.0 ও লকডাউন 4.0 এর মধ্যে ? দেখে নিন এক নজরে

কি কি পার্থক্য থাকল লকডাউন 3.0 ও লকডাউন 4.0 এর মধ্যে ? দেখে নিন এক নজরে

আজ থেকে শুরু হয়েছে লকডাউনের চতুর্থ অধ্যায়। এবার আগের চেয়ে রাজ্যগুলির ওপর অনেক বেশি ছাড় দেওয়া হয়েছে ।
lockdown 3.0 vs lockdown 4.0
নিজেদের মতো করে লকডাউন সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারবে রাজ্য । করোনা জোন ঠিক করার দায়িত্বও রাজ্য ও কেন্দ্রীয় শাসিত অঞ্চলগুলির ওপর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

একই সঙ্গে শিথিল করা হয়েছে যানবাহন সংক্রান্ত নিষেধাজ্ঞা, অফিস খোলার শর্ত ও আরোগ্য সেতু ডাউনলোডের শর্তাবলী। ই-কমার্সের ক্ষেত্রেও অতিরিক্ত ছাড় দেওয়া হয়েছে। একনজরে দেখে নেওয়া যাক।

যোগাযোগ
আন্তঃরাজ্য বাস ও গাড়ি চলার ওপর নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে দিল রাজ্যসরকার। দুটি রাজ্যের সম্মতি থাকলে মানুষ যাতায়াত করতে পারবেন এক রাজ্য থেকে অন্যটিতে বিনা বাধায়। রেড জোনেও বাস, ট্যাক্সি, অ্যাপ ক্যাব, অটো ইত্যাদি চলবে।

জোনের ভাগ-

রাজ্য বা কেন্দ্রীয় শাসিত অঞ্চল ঠিক করবে সবুজ. অরেঞ্জ ও রেড জোন- কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের নির্দেশিকা মাথায় রেখে।

বাজার

মল ছাড়া বাকি সব দোকানপাট খোলা যাবে। কিন্তু একসঙ্গে পাঁচ জনের বেশি প্রবেশ করা যাবে না। সামাজিক দূরত্ব মানতে হবে। ঘনঘন দোকান স্যানিটাইজ করতে হবে। আলাদা আলাদা সময় বিভিন্ন দোকান খুলতে হবে। সেলুনের দোকান, স্পা ইত্যাদি খোলা থাকবে রেড জোনে কন্টেনমেন্ট এরিয়া বাদে।

আরোগ্য সেতু

আপত্তির পর আরোগ্য সেতু অ্যাপ নিয়ে অবস্থান শিথিল করল কেন্দ্র। এই করোনা কন্ট্যাক্ট ট্রেসিং অ্যাপ আর বাধ্যতামূলক থাকল না।

খোলা থাকবে স্টেডিয়াম

দর্শকদের অনুমতি না দেওয়া হলেও স্টেডিয়াম খোলার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

অফিস

এর আগে বলা ছিল রেড জোনে ৩৩ শতাংশের বেশি কর্মী অফিসে আসতে পারবে না। সেই কড়াকড়ি উঠে গেল। একই সঙ্গে সবাইকে অফিসের কাছেে থাকতে হবে বা অফিসকে কর্মীদের যাতায়াতের ব্যবস্থা করতে হবে, এরকম নির্দেশিকাও উঠে গেল।

ই-কমার্স

যেরকম জিনিস নিত্যপ্রয়োজনীয় নয়, এমন জিনিসও এবার ই-কমার্স সাইটগুলি থেকে অর্ডার দেওয়া যাবে।

অপরিবর্তিত থাকবে

✓ শুধু বিশেষ ট্রেনই চলবে।
✓ কন্টেনমেন্ট জোনে শুধু নিত্যপ্রয়োজনীয় পরিষেবা চলবে।
✓ রাত সাতটা থেকে সকাল সাতটা অবধি কার্ফু থেকে গেল। শুধু অত্যাবশ্যক পরিষেবা চলবে এই সময়।
✓ ৬৫ বছরের ওপর ব্যক্তি, শিশু ও অসুস্থদের বাড়িতে থাকতে বলা হয়েছে।
✓ সব জায়গায় মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক।
✓ যত্রতত্র পানের পিক, থুতু ফেলা শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

সারা দেশে যেগুলি বন্ধ এখনও-

✓ সমস্ত প্নেন ( আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া)
✓ মেট্রো ট্রেন
✓ বিশেষ ট্রেন বাদ দিয়ে বাকি যাত্রীবাহী ট্রেন
✓ রেস্তোঁরা
✓ সিনেমা হল, মল, জিম
✓ ধর্মীয় ও রাজনৈতিক জমায়েত
✓ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান