বিনা পরীক্ষায় দ্বাদশ শ্রেণীতে উত্তীর্ণ হবে,রয়ে গেল কিছু প্রশ্ন !

বিনা পরীক্ষায় দ্বাদশ শ্রেণীতে উত্তীর্ণ হবে,রয়ে গেল কিছু প্রশ্ন !

বুধবার নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের পরবর্তী সেমিস্টারে তুলে দেওয়া হবে। ফলে তাঁদের বছর নষ্ট হবে না। যে পড়ুয়ারা ফাইনাল সেমিস্টার দেবেন, শুধুমাত্র তাঁদের ক্ষেত্রে পরীক্ষা নেওয়া হবে।
students image
এইখানেই থেকে গেল কিছু প্রশ্ন !

যেমন যে বিষয়গুলিতে প্র্যাকটিক্যাল নেই, সেই বিষয়ের পড়ুয়াদের অনলাইন ক্লাসের মাধ্যমে না হয় সিলেবাস শেষ করা হবে। কিন্তু রয়াসন, জীববিদ্যা, ভূগোলের মতো প্র্যাকটিক্যাল নির্ভর বিষয়গুলির ক্ষেত্রে শুধু অনলাইন ক্লাসে হবে না। ফলে সেই প্র্যাকটিক্যাল ক্লাসের খামতি কীভাবে পূরণ করা হবে ?

শিক্ষামহলের মতে, আগে কখনও এরকম পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হয়নি। ফলে অসুবিধা হওয়াটা স্বাভাবিক।

একটি অংশের মতে, পরীক্ষা মরশুমের কয়েকদিন আগে ক্লাস বন্ধ হয়েছে। ফলে সেই সেমিষ্টার এর পড়া অনেকটাই এগিয়ে গিয়েছে। হয়েছে প্র্যাকটিক্যাল। করোনা পরিস্থিতিতে যেটুকু সুযোগ মেলেনি, সেটার অভাব নয়া সেমিস্টার এ পুষিয়ে দেওয়া হবে।

নয়া সেমিস্টারে আবার নতুন প্র্যাকটিক্যাল থাকবে। পুরনো কাজ শেষ করে নতুন প্র্যাকটিক্যাল করা কি আদৌও সম্ভব হবে?

এদিকে, ১০ জুন পর্যন্ত রাজ্যের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার ঘোষণা করেছে রাজ্য।

কিন্তু ততদিনে আদৌও পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে কিনা, তাতে বড়সড় প্রশ্নচিহ্ন রয়েছে।

কবে ফের কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় খুলবে, তার কোনও নিশ্চয়তা নেই।

ফলে পরবর্তী সেমেস্টারেও হাতে কতদিন সময় পাওয়া যাবে, তা নিয়ে চিন্তা রয়েই গেল ।