তিরুপতি মন্দিরের কোন সম্পত্তি নিলাম বা বিক্রি নয়, সিদ্ধান্ত কর্তৃপক্ষর

তিরুপতি মন্দিরের কোন সম্পত্তি নিলাম বা বিক্রি নয়, সিদ্ধান্ত কর্তৃপক্ষর

এবার থেকে ভক্তদের দেওয়া জমি-সহ মন্দিরের কোনও সম্পত্তি বিক্রি বা নিলাম করা হবে না। বৃহস্পতিবার এমনই সিদ্ধান্ত নিল তিরুপতি মন্দির কর্তৃপক্ষ।

তিরুপতি মন্দির
অন্ধ্রপ্রদেশ, তামিলনাড়ু এবং হৃষিকেশে অবস্থিত মন্দিরের ৫০ টি সম্পত্তি বিক্রির প্রস্তাব দিয়েছিল তিরুমালা তিরুপতি দেবস্থানামস (টিটিডি)। তা নিয়ে তুমুল বিতর্ক শুরু হয়।

বিজেপি ও বিভিন্ন হিন্দুত্ববাদী সংগঠনের সমালোচনার মুখে পড়ে বৃহস্পতিবার ভিডিয়ো কনফারেন্সের মাধ্যমে একটি বৈঠকে সম্পত্তি নয়া প্রস্তাব পাশ করে দেশের সবচেয়ে বিত্তবান ভেঙ্কটেশ্বর দেবের মন্দিরের পরিচালনা সংস্থা।

টিটিডি ট্রাস্ট বোর্ডের চেয়ারম্যান ওয়াই ভি সুব্বা রেড্ডি জানান, মন্দিরের অকার্যকরী সম্পত্তি নিলামের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল পূর্ববর্তী বোর্ড। সেই সময় অন্ধ্রপ্রদেশে ক্ষমতায় ছিল তেলুগু দেশম পার্টি (টিডিপি)।

সম্প্রতি বোর্ডের একটি বৈঠকে দল গঠন করে আগের সিদ্ধান্তের কী ভবিষ্যত, তার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। বোর্ডের চেয়ারম্যান বলেন, ‘জমি, বাড়ি এবং অন্যান্য উপহার-সহ ভক্তদের দান করা তিরুমালা মন্দিরের কোনও সম্পত্তি নিলাম বা বিক্রি না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বোর্ড।’

তবে মন্দিরের কোনও জমি বা সম্পত্তিতে জবরদখলের বিষয় থাকলে বিভিন্ন মঠ, ভক্তদের প্রতিনিধি এবং বোর্ড সদস্যদের নিয়ে একটি কমিটি গঠন করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

জবরদখলকারীদের উচ্ছেদ করার রাস্তা খুঁজে বের করবে সেই কমিটি। পাশাপাশি টিডিপির আমলে বোর্ডের যে সিদ্ধান্তগুলি নেওয়া হয়েছিল, সেগুলির তদন্তের নির্দেশ দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে বর্তমান বোর্ড।

এদিকে, লকডাউন ওঠার পর মন্দির খোলার জন্য যাবতীয় প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

রেড্ডি বলেন, ‘করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে কঠোরভাবে নির্দেশিকা মেনে দর্শনের জন্য মন্দির খোলার অনুমতি চেয়ে রাজ্য সরকারকে চিঠি লিখেছি আমরা। সরকারের অনুমতি পেলেই আমরা দর্শনের জন্য মন্দির খুলব।’