কাল থেকে চলছে ডেরেক-দোলাদের ধরনা, সকালের চা আনলেন খোদ রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান

কাল থেকে চলছে ডেরেক-দোলাদের ধরনা, সকালের চা আনলেন খোদ রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান

সারারাত সংসদের গান্ধীমূর্তির পাদদেশে ধরনা দিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের ডেরেক ও’ব্রায়েন এবং দোলা সেন-সহ রাজ্যসভা থেকে সাসপেন্ড হওয়া আট সাংসদ।

‘জোর করে’ কৃষি বিল পাশ এবং ‘বেআইনিভাবে’ সাসপেন্ড করার অভিযোগে রাতভর সংসদের গান্ধীমূর্তির পাদদেশে ধরনায় রাজ্যসভার আট সাংসদ। গণতন্ত্রের পীঠস্থান সংসদের ‘মর্যাদা লঙ্ঘনের’ অভিযোগে গতকালই এদের ৭ দিনের জন্য সাসপেন্ড করেন চেয়ারম্যান ভেঙ্কাইয়া নায়ডু।

যার প্রতিবাদে কাল দুপুরেই গান্ধী মূর্তির পাদদেশে ধরনায় বসেন বিরোধী সাংসদরা। দিনভর চলে স্লোগান দেওয়া, গান গাওয়া। সংসদীয় রাজনীতিতে এ ছবি নতুন কিছু নয়। সরকারি সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে গান্ধী মূর্তির নিচে বিক্ষোভ এবং ধরনা দুটোই বহুবার করতে দেখা গিয়েছে বিরোধীদের। ধর্নাতে আছেন ডেরেক, দোলা, আপের সঞ্জয় সিং, কংগ্রেসের রাজু সাতাব, সইদ নাজির হুসেন ও রিপুন বোরা এবং সিপিআইএমের কে কে রাগেশ ও ইলামারান করিম।


রাতভর ধরনার জন্য রীতিমতো প্রস্তুতি নিয়েও আসেন আট সাংসদ। নিজেদের বালিশ ও চাদরের পাশাপাশি ছিল মশা মারার ওষুধও। রাতভর এভাবে ধরনায় বসে থাকা, বা গান্ধীমূর্তির পাদদেশে খোলা আকাশের নিচে রাত কাটানো এক কথায় বেনজির।

বুধবার সকালে আট সাংসদের সঙ্গে দেখা করতে আসেন রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান হরিবংশ নারায়ণ সিং। যাঁর সিদ্ধান্ত নিয়েই রবিবার সংসদের উচ্চকক্ষে তুলকালাম বেঁধেছিল। আট সাংসদের জন্য চা নিয়ে আসেন তিনি।