ভোটের আগে নতুন চমক! মাত্র ৫ টাকায় ভরপেট খাওয়াতে বারাকপুরে চালু হল ‘দিদির রান্নাঘর’

ভোটের আগে নতুন চমক! মাত্র ৫ টাকায় ভরপেট খাওয়াতে বারাকপুরে চালু হল ‘দিদির রান্নাঘর’

লকডাউনের সময় কাজ হারানো ক্ষুধার্তদের মুখে সামান্য অন্ন তুলে দিতে শহর কলকাতায় শ্রমজীবী ক্যান্টিন চালু করেছিলেন বামপন্থী কর্মী সমর্থকরা। ক্লাব ও তৃণমূলের যৌথ উদ্যোগে চালু হচ্ছে স্বল্পমূল্যে একবেলা পেটভরে খাবারের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা। নাম তার – ‘দিদির রান্নাঘর’।

আগামী একমাস বারাকপুর বাসীদের মাত্র ৫ টাকাতেই মিলবে মধ্যাহ্নভোজ। মাস খানেক আগে হাওড়ার তৃণমূল কাউন্সিলরের উদ্যোগে সেখানকার দুই জায়গায় চালু হয়েছে দুটি কমিউনিটি কিচেন। সালকিয়া এলাকায় চলছে ‘মমতার মমতা’, আর বেলগাছিয়া এলাকার রান্নাঘরের নাম ‘মমতাময়ী মমতা’। দুটিতেই ১০ থেকে ২০ টাকা অর্থাৎ অতি স্বল্পমূল্যে মিলছে ভরপেট খাবার। মাছভাত কিংবা ডিমভাত – পেট ভরে খাওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন সকলেই। দিনের নির্দিষ্ট সময়ে এই কমিউনিটি কিচেনে চলে গেলে কাউকেই না খেয়ে ফিরতে হবে না।

তবে বারাকপুরে তৈরি ‘দিদির রান্নাঘর’ একটু আলাদা। পয়লা অক্টোবর থেকে ৩১ অক্টোবর অর্থাৎ গোটা পুজোর মাসটিতেই এলাকার স্থানীয় দরিদ্র মানুষজনের অন্নের ভাবনা মুছে দিতে চালু করা হচ্ছে মাত্র ৫ টাকার ভরপেট মধ্যাহ্নভোজন ।

ব্যারাকপুর ও টিটাগড় ক্লাব সমন্বয় কমিটির উদ্যোগে চালু হওয়া ‘দিদির রান্নাঘর’এ শামিল দুই পুরসভার প্রশাসনিক বোর্ডের মুখ্য প্রশাসকরাও। এছাড়া এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন এই এলাকার অতি পরিচিত সমাজসেবী লালন পাসোয়ান। বারাকপুরের বিএন বসু মহকুমা হাসপাতালের ঠিক উলটো দিকেই ‘দিদির রান্নাঘর’হয়েছে বেলা ১১ টা থেকে বিকেল ৩টে পর্যন্ত খোলা থাকবে ।